আপডেটঃ ২০১৫ সালের এইচ. এস. সি. পরীক্ষার ফলাফলে ৪১৩ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাশ করেছে ৪০৬ জন। পাশের হার ৯৮.৩১%. A+ পেয়েছে ৪৯ জন, A পেয়েছে ২৯২ জন। শুরু হতে চলেছে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা । প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের ভর্তি শুরু ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

Brahmanbaria High School, Brahmanbaria

একাডেমীক

ভর্তি

ফলাফল

নোটিশ

গ্যালারি

অধ্যক্ষের বাণী

৭১ এর বীর শহীদদের স্মৃতিকে অম্লান করে রাখতে মধুপুর লাল মাটির মাতৃক্রোড়ে গড়ে উঠে “অনুনেট স্কুল এবং কলেজ" মধুপুর, টাঙ্গাইল।” ধারাবাহিক সাফল্য বজায় রেখে এ প্রতিষ্ঠানটির আজ আটত্রিশটি সোনালি শিক্ষাবর্ষে পদার্পন।

বোর্ড শ্রেষ্ঠ অনুনেট স্কুল এবং কলেজ শিক্ষা সংস্কৃতি চর্চা, মেধার বিকাশ ও মানসিক উৎকর্ষ সাধনের মাধ্যমে জাতির মনন গঠন করে চলছে, নিরবে। শুধু মধুপুর নয়; সমগ্র দেশের জ্ঞান পিপাসু শিক্ষার্থীরা ছুটে আসছে এ প্রতিষ্ঠানের সাফল্যের আকর্ষণে। কুশলী ও মেধাবী কাণ্ডারির সুষঠ ও সুশৃঙ্খল পরিচালনা, সংশ্লিষ্ট সকলের নিরলস শ্রম-আন্তরিকতা, সততা ও নিষ্ঠার জন্যই এ প্রতিষ্ঠান ঐতিহ্যের সাথে ধাবমান অধিকতর সম্বাবনার দিকে। এর জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে জানাই আন্তরিক সাধুবাদ।

আলোক পিয়াসী শিক্ষার্থীরা জ্ঞান এর সকল শাখায় বিচরন করে জাগরন ঘটাক নিজের, দেশের ও বিশ্বের। একই সাথে আমার প্রত্যাশা যেকোন মূল্যে যেন আমাদের অর্জিত সুনাম, যশ ও ঐতিহ্য রক্ষা করতে পারি, এটাই হোক আমাদের দৃঢ় প্রতিজ্ঞা।

সৃষ্টিশীল চিন্তনের আলোকে দেখা দিক জ্ঞান এর নতুন দিগন্ত, যা এ প্রতিষ্ঠানকে, জাতিকে করবে মহীয়ান ও গরীয়ান।

প্রতিষ্ঠানের ইতিহাস

অনুনেট স্কুল এবং কলেজ। EIIN-১১৪৪৬০ মধুপুর চিরপরিচিত ভৌগোলিক একটি নাম। জেলাসদর টাঙ্গাইল হতে ময়মনসিংহ এবং জামালপুর সংযোগকারী মহাসড়কের মাঝপথে বংশাই নদীর তীরে এর অবস্থান। বংশাই ব্রীজের উত্তর পাড়ে বাসস্ট্যান্ড, আর দক্ষিন পাড়ে চলমান রাস্তার পশ্চিমে থানা, পূর্বে সামান্য এগিয়ে উপজেলা কম্পলেক্স। উপজেলা পরিষদ ভবন সংলগ্ন মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের বধ্যভূমির পাশে ‘মধুপুর শহীদ স্মৃতি উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়’ এর স্কুল শাখা আর পাশেই প্রতিষ্ঠানের খেলার মাঠে প্রান্ত—দেশ ঘেষে কলেজ শাখার ইমরাত। ১৯৯৫-১৯৯৬ শিক্ষাবর্ষে সরকারের শিক্ষা সম্প্রসারন নীতির আওতায় অগ্রসরমাণ বিদ্যালয় হিসেবে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের প্রথম স্বীকৃতি প্রাপ্ত মধুপুর শহীদ স্মৃতি উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়। প্রথম ব্যাচের ছাত্র-ছাত্রীরা ১৯৯৭ সালে এইচ.এস.সি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে। এ প্রতিষ্ঠাটি ২০০৩ সনের এইচ.এস.সি পরীক্ষায় ঢাকা বোর্ডের টপটেন কলেজের নবম স্থান অধিকারী, শিক্ষা মন্ত্রনালয় কর্তৃক ২০০৪ সনে জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ কলেজ হিসেবে মহামান্য রাষ্ট্রপতি প্রদত্ত পদক প্রাপ্ত।

১৯৭১ সালের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের শহীদদের স্মৃতিকে অম্লান করে রাখার জন্য আলহাজ মো. নূর রহমান ও এলাকা বাসি্র আন্তরিক সহযোগিতায় ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত “অনুনেট স্কুল এবং কলেজ”। ১৯৯৫-৯৬ শিক্ষাবর্ষে সরকারের শিক্ষা সম্প্রসারণ নীতির আওতায় অগ্রসরমান বিদ্যালয় হিসেবে একাদশ শ্রেণি খোলার জন্য ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের প্রথম স্বীকৃতি প্রাপ্ত অনুনেট স্কুলকে অনুনেট স্কুল এবং কলেজে রুপান্তরিত করা হয়। বিস্তারিত পড়ুন

আমাদের গৌরবোজ্জল অর্জন

ক্রমিক পরীক্ষার নাম সাল অবস্থান
০১ জেএসসি ২০১৩ প্রথম
০২ এসএসসি ২০১৩ প্রথম
০৩ এইচএসসি ২০১৩ প্রথম
০৪ জেএসসি ২০১৪ প্রথম
০৫ এসএসসি ২০১৪ প্রথম
০৬ এইচএসসি ২০১৪ প্রথম